বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ব্যবসায় উদ্যোগে ভূমিকা নিরূপণ- এসএসসি ব্যাচ 2021 ব্যবসায় উদ্যোগ ২য় সপ্তাহ

এসএসসি 2021 সালের পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের ছাত্র ছাত্রীদের ব্যবসায় উদ্যোগ ২য় সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্টের পূর্ণাঙ্গ সমাধানে পোষ্টের মাধ্যমে তুলে ধরা হলো। অর্থাৎ যে সকল ছাত্র ছাত্রীরা ব্যবসায় উদ্যোগ ২য় সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট এর পূর্ণাঙ্গ এবং সঠিক সমাধান চাচ্ছেন। তারা আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন। কেননা আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত সকল অ্যাসাইনমেন্টের উত্তর আপনাকে দিচ্ছে শতভাগ নম্বর পাওয়ার নিশ্চয়তা। অ্যাসাইনমেন্টের উত্তর লেখার পূর্বে অবশ্য এই প্রশ্নটিই ভালভাবে বুঝে তারপর উত্তর লিখবেন। ফলে অ্যাসাইনমেন্ট এর প্রশ্নের সাথে সামঞ্জস্য রেখে উত্তর লিখলে উত্তর ভুল হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে। চলন ব্যবসায় উদ্যোগ ২য় সপ্তাহের এসাইনমেন্ট উত্তর দেখে নেয়া যাক।

এসএসসি ব্যবসায় উদ্যোগ ২য় সপ্তাহ অ্যাসাইনমেন্ট প্রশ্ন 2021

ছাত্র-ছাত্রীদের বোঝার সুবিধার্থে শুরুতে বাংলাদেশ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এসএসসি 2021 সালের পরীক্ষা অংশগ্রহণকারী ব্যবসায় উদ্যোগ ২য় সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট এর প্রশ্ন নিচে তুলে ধরা হলো।

অধ্যায় শিরোনাম:

দ্বিতীয় অধ্যায়: ব্যবসায় উদ্যোগ ও উদ্যোক্তা

অ্যাসাইনমেন্ট:

বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ব্যবসায় উদ্যোগে ভূমিকা নিরূপণ

শিখনফল বিষয়বস্তু:

  1. উদ্যোগ ও ব্যবসায় উদ্যোগের ধারণ ব্যাখ্যা তে পারবাে
  2. ব্যবসায় উদ্যোগ গড়ে উঠার অনুকূল পন্নিবেশ বর্ণনা রতে পারবাে
  3. ব্যবসায় উদ্যোগের বৈশিষ্ট্য ও কার্যাবলি বর্ণনা কতে পারবাে
  4. বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ব্যবসায় উদ্যোগের গুরুত্ব ব্যাখ্যা করতে পারবাে

নির্দেশনা:

  • উদ্যোগ ও ব্যবসায় উদ্যোগ এর ধারণা দিতে হবে
  • ব্যবসায় উদ্যোগ গড়ে উঠার অনুকূল পরিবেশের বর্ণনা দিতে হবে
  • ব্যবসায় উদ্যোগের বৈশিষ্ট্য বর্ণনা করতে হবে
  • আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ব্যবসায় উদ্যোগের গুরুত্ব ব্যাখ্যা কতে হবে

এসএসসি ব্যাচ 2021 ব্যবসায় উদ্যোগ ২য় সপ্তাহ এসাইনমেন্ট উত্তর

ব্যবসায় উদ্যোগ অ্যাসাইনমেন্টের উত্তর নিচে দেওয়া হলঃ

২য় সপ্তাহের এসাইনমেন্ট – ২ (ব্যবসায় উদ্যোগ)

উত্তর অধ্যায়-২ শিরােনাম: ব্যবসায় উদ্যোগ ও উদ্যোক্তা

 প্রশ্ন’ : উদ্যোগ ব্যবসায় উদ্যোগের ধারণাঃ

উত্তর: যেকোনাে ব্যবসায়ও কোনাে একজন ব্যক্তি বা কয়েকজনের সম্মিলিত প্রচেষ্টার ফসল। একটি ব্যবসায় স্থাপনের ধারণা চিহ্নিতকরণ থেকে শুরু করে ব্যবসায়টি স্থাপন ও সফলভাবে পরিচালনাই ব্যবসায় উদ্যোগ। বিশদভাবে বলতে গেলে, ব্যবসায় উদ্যোগ বলতে বােঝায় লাভবান হওয়ার আশায় লােকসানের সম্ভাবনা জেনেও ঝুঁকি নিয়ে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠার জন্য দৃঢ়ভাবে এগিয়ে যাওয়া ও সফলভাবে ব্যবসায় পরিচালনা করা।

ব্যবসায় উদ্যোগ (Entrepreneurship) এবং ব্যবসায় উদ্যোক্তা (Entrepreneur) শব্দ দুটি একটি অন্যটির সাথে জড়িত। যিনি ব্যবসায় উদ্যোগ গ্রহণ করেন তিনিই ব্যবসায় উদ্যোক্তা। আমেরিকার ফোর্ড কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা হেনরি ফোর্ড, জাপানের ইলেকট্রনিক পণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ম্যাটসুসিটা কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা কনােকে ম্যাটসুসিটা পৃথিবী বিখ্যাত শিল্পোদ্যোক্তা ছিলেন। পরিশেষে বলা যায় যে, কোন কাজের কর্মপ্রচেষ্টাই উদ্যোগ। উদ্যোগ যেকোন বিষয়েই হতে পারে। আর ব্যবসায় উদ্যোগ বলতে বােঝায় লাভবান হওয়ার আশায় লােকসানের সম্ভাবনা জেনে ও ঝুঁকি নিয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠার জন্য দৃঢ়ভাবে এগিয়ে যাওয়া ও সফলভাবে ব্যবসা পরিচালনা করা।

প্রশ্ন’ : ব্যবসায় উদ্যোগ গড়ে উঠার অনুকূল পরিবেশের ধারণাঃ

উত্তর: আমাদের দেশে মেধাশক্তির খুব বেশি ঘাটতি নেই। শুধুমাত্র অনুকূল পরিবেশের অভাবে আমাদের অগ্রযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। ব্যবসায় উদ্যোগ গড়ে উঠার জন্য।যেসকল  অনুকূল পরিবেশ থাকা উচিতঃ

ক) আর্থ-সামাজিক স্থিতিশীলতা: অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও সামাজিক স্থিতিশীলতা যেমন ব্যবসায় উদ্যোগের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করে, তেমনি অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও সামাজিক অস্থিরতা ব্যবসায় উদ্যোগের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলে।

খ) উন্নত অবকাঠামােগত উপাদান: ব্যবসায় পরিচালনার জন্য আনুষঙ্গিক কিছু সুযােগ সুবিধা, যেমন বিদ্যুৎ, গ্যাস ও যাতায়াত ব্যবস্থা দরকার। ব্যবসায়ের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টির জন্য এই সকল উপাদান থাকা বাঞ্চনীয়।

গ) প্রশিক্ষণের সুযােগ: প্রশিক্ষণের অভাবে অনেক সময় সুযােগ থাকা সত্ত্বেও সঠিক পদক্ষেপ নেওয়া সম্ভব হয় না। প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ব্যবসায়ের জন্য অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করা সম্ভব।

ঘ) অনুকূল আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি: আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অনুকূল থাকলে ব্যবসায় স্থাপন ও পরিচালনা সহজ হয়। অন্যদিকে অস্থিতিশীল আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ব্যবসায় স্থাপন ও পরিচালনার ক্ষেত্রে মারাত্মক হুমকির সৃষ্টি করে।

 ঙ) পর্যাপ্ত পুঁজির প্রাপ্যতা: যেকোনাে ব্যবসায় উদ্যোগ সফলভাবে বাস্তবায়ন করার জন্য প্রয়ােজন পর্যাপ্ত পরিমাণ পুঁজি বা মূলধন। চ) সরকারি হস্তক্ষেপ: সরকারি পৃষ্ঠপােষকতার মাধ্যমে দেশের ব্যবসায় উদ্যোগের আরও সম্প্রসারণ ও সমৃদ্ধি সম্ভব। সরকারি বিভিন্ন সিদ্ধান্ত যেমন কর মওকুফ, স্বল্প বা বিনা সুদে মুলধন সরবরাহ ইত্যাদি ব্যবসায় উদ্যোগের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করতে পারবে।

প্রশ্ন’ : ব্যবসায় উদ্যোগের বৈশিষ্ট্যঃ

উত্তর: ব্যবসায় উদ্যোগের ধারণা বিশ্লেষণ করলে যে সকল বৈশিষ্ট্য ও কার্যাবলী লক্ষ্য করা যায় তা হলাে: ১) এটি ব্যবসায় স্থাপনের কর্ম উদ্যোগ।

২) নতুন সম্পদ সৃষ্টি করা ও মূলধন গঠন করা।

৩) ঝুঁকি আছে জেনেও লাভের আশায় ব্যবসা পরিচালনা করা।

৪) নিজের জন্য কর্মসংস্থানের সুযােগ সৃষ্টি করা।

৫) সার্বিকবাবে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে অবদান রাখা।

৬) ব্যবসা উদ্যোগের ফলাফল হল একটি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান।

৭) ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান সফলভাবে পরিচালনা করা।

৮) অন্যদের জন্য কর্মসংস্থানের সুযােগ সৃষ্টি করা।

৯) ব্যবসায় উদ্যোগের জন্য একটি ফলাফল হলাে একটি পণ্য বা সেবা

১০) মুনাফার পাশাপাশি সামাজিক দায়বদ্ধতা গ্রহণ করা। – দল।

প্রশ্ন’ : আর্থসামাজিক উন্নয়নে ব্যবসায় উদ্যোগের গুরুত্বঃ

উত্তর: ব্যবসায় উদ্যোগের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ব্যবসায় উদ্যোগের গুরুত্বসমূহ নিচে আলােকপাত করা হলাে:

 ক) সম্পদের সঠিক ব্যবহার: ব্যবসায় উদ্যোগ আমাদের দেশের প্রাকৃতিক সম্পদ ও কৃত্রিম সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিত করে থাকে। এছাড়া নতুন নতুন শিল্প স্থাপনের মাধ্যমে বিনিয়ােগ বৃদ্ধি করা এবং সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিত করা সম্ভব হয়। নিশ্চিত করা সম্বব হয়ে

খ) কর্মসংস্থানের সুযােগসৃষ্টি: আমাদের দেশে সরকারের পাশাপাশি উদ্যোক্তাদের মাধ্যমেও বিভিন্ন শিল্প কারখানা স্থাপন, পরিচালনা ও সম্প্রসারণ হয়ে থাকে। এর মাধ্যমে নিত্যনতুন কর্মসংস্থানের সুযােগ সৃষ্টি হয় যা বেকার সমস্যা দূর করতে উল্লেখযােগ্য ভূমিকা রাখে।

গ) দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টি: বাংলাদেশ একটি জনবহুল দেশ। আমাদের এই বিশাল জনসংখ্যাই আমাদের সম্পদ হতে পারে। কারণ ব্যবসায় উদ্যোক্তা দেশের অদক্ষ জনগােষ্ঠিকে উৎপাদনশীল কাজে নিয়ােজিত করে দক্ষ মানবসম্পদে রূপান্তর করতে পারে।

ঘ) জাতীয় উৎপাদন আয় বৃদ্ধি: ব্যবসায় উদ্যোগের মাধ্যমে দেশের জাতীয় আয় বৃদ্ধি পায়। ফলে সরকার কর্তৃক নির্ধারিত জাতীয় আয় বৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব হয়।

ঙ) পরনির্ভরশীলতা দূরীকরণ: ব্যবসায় উদ্যোগের মাধ্যমে আমরা আমাদের পরনির্ভরশীলতা অনেকাংশে হ্রাস করতে পারি। ব্যবসায় উদ্যোগের সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে আমরা একদিন অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হতে পারব।

পরিশেষে বলা যায় যে, উপরােক্ত কার্যাবলিগুলাে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ব্যবসায় উদ্যোগের গুরুত্ব অনেকাংশে বেশি।

মূল কথাঃ

আমরা ঘোষণা দিচ্ছে যে আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিটি অ্যাসাইনমেন্টের উত্তর সম্পূর্ণ নির্ভুল এবং পরিপূর্ণ। যেহেতু আমাদের ওয়েবসাইটের বিষয়ভিত্তিক বিশেষজ্ঞ শিক্ষকগণ দ্বারা প্রতিটি অ্যাসাইনমেন্টের উত্তর তৈরি করা হয়। এবং ক্লাস ভিত্তিক বোর্ড বই ও স্বনামধন্য রেফারেন্স বই থেকে সংগ্রহ করা হয়। তাই আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত অ্যাসাইনমেন্টের উত্তর 2021 সালের পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের বোর্ড পরীক্ষায় A+ সহ সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়ার নিশ্চয়তা প্রদান করে। তবুও মানুষ যেহেতু ভুলের ঊর্ধ্বে নয় তাই।অ্যাসাইনমেন্ট এর উত্তরে ছোটখাটো কোনো ভুল ধরা পড়লে অবশ্যই কমেন্ট বক্স এর মাধ্যমে জানাবেন।

আরও দেখুনঃ

এসএসসি ব্যাচ 2021 – ২য় ও ৩য় সপ্তাহ হিসাববিজ্ঞান এসাইনমেন্ট উত্তর-পিডিএফ উত্তর ডাউনলোড

এসএস সি ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং ১ম সপ্তাহ অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর 2021। পরীক্ষার্থী ব্যাচ-2021

সকল পোস্টের আপডেট পেতেনিচের ফেসবুক আইকনে ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেইজে জয়েন করুন।

Check Also

বাংলাদেশের লােকশিল্পের বিলুপ্তির কারণ এবং লােকশিল্প সংরক্ষণের উপায়।

৮ম শ্রেণির বাংলা এসাইনমেন্ট এর নির্ভুল এবং পূর্ণাঙ্গ উত্তর প্রকাশ করা হলো। প্রিয়  ৮ম শ্রেণীর …