নবম শ্রেণির বাংলা এসাইনমেন্ট উত্তর 2021। {৮ম-সপ্তাহ} এসাইনমেন্ট উত্তর ডাউনলোড

নবম শ্রেণী ৮ম সপ্তাহ নির্ধারিত বিষয় বাংলা এসাইনমেন্ট এর প্রশ্ন এবং কাজ প্রকাশিত হয়েছে। সপ্তাহ সপ্তাহের সকল বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্ট শেষে আজ নবম শ্রেণী অষ্টম সপ্তাহের অন্যান্য বিষয়ের সাথে বাংলা বিষয়ের প্রশ্ন নির্ধারণ করে বাংলাদেশ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। আমরা আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নবম শ্রেণীর অষ্টম সপ্তাহের বাংলা প্রশ্ন এবং এর সঠিক ও পূর্ণাঙ্গ সমাধান প্রকাশ করলাম। আপনারা যারা ইতোমধ্যে নবম শ্রেণীর সপ্তম সপ্তাহের সকল অ্যাসাইনমেন্ট কমপ্লিট করে অষ্টম সপ্তাহের বাংলা এসাইনমেন্ট এর পূর্ণাঙ্গ উত্তর খুজছেন। তারা আমাদের ওয়েবসাইট থেকে নবম শ্রেণি অষ্টম সপ্তাহের বাংলা এসাইনমেন্ট এর পূর্ণাঙ্গ উত্তর পডাউনলোড করে নিতে পারেন।

আমাদের ওয়েবসাইটের বিশেষজ্ঞ শিক্ষকগণ নবম শ্রেণীর বোর্ড বই এবং অন্যান্য রেফারেন্স বই থেকে নির্মূল এবং সঠিক উত্তর প্রদান করে থাকে। তাই কোনরকম দ্বিধা ছাড়াই আপনারা নবম শ্রেণির অষ্টম সপ্তাহের বাংলা অ্যাসাইনমেন্টের উত্তর ডাউনলোড করে নিতে পারেন। অষ্টম সপ্তাহের বাংলা এসাইনমেন্ট এর উত্তর পেতে পুরো পোস্টটি সম্পূর্ণরূপে পড়তে থাকুন।

নবম শ্রেণী অ্যাসাইনমেন্ট 2021।

করণা মহামারীর কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার জন্য ছাত্র-ছাত্রীদের লেখাপড়া যাতে কোনো ধরনের ক্ষতি না, হয় সেই লক্ষ্যে বাংলাদেশ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম 2021 অ্যাসাইনমেন্ট এর মাধ্যমে শব্দ ভিত্তিক বিষয় নির্ধারণ করে এর প্রশ্ন প্রকাশ করা হচ্ছে। যাহা ছাত্র-ছাত্রীদের কে দিয়ে সমাধান করার মাধ্যমে তাদের লেখাপড়ার সাথে সম্পৃক্ত করা সম্ভব হয়েছে।

 

আমরা আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে নবম শ্রেণীর প্রথম সপ্তাহ থেকে সকল সপ্তাহের সকল বিষয়ের সঠিক এবং পূর্ণাঙ্গ সমাধান প্রকাশ করে আসছি। যার ধারাবাহিকতায় আজকে নবম শ্রেণির অষ্টম সপ্তাহের বাংলা এসাইনমেন্ট এর প্রশ্ন এবং এর উত্তর প্রকাশ করা হলো। যারা এখনো পর্যন্ত নবম শ্রেণীর সপ্তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট সম্পন্ন করেন নি। তারা আমাদের ওয়েবসাইট থেকে নবম শ্রেণীর সপ্তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট ডাউনলোড করে নিতে পারেন। নবম শ্রেণীর সপ্তম সপ্তাহের সকল বিশ্বের অ্যাসাইনমেন্টের উত্তর ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন

৮ম সপ্তাহ বাংলা এসাইনমেন্ট নির্ধারিত কাজ বা প্রশ্ন

বরাবরের মতো এবারও বাংলাদেশ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইড dshe.gov.bd মাধ্যমে নবম শ্রেণির অষ্টম সপ্তাহের নির্দিষ্ট বিষয় বাংলা প্রশ্ন বা প্রকাশ করল। আপনারা এখনও পর্যন্ত যারা নবম শ্রেণীর বাংলায় আছেন মেনটেল প্রশ্ন খুঁজে পাননি তারা আমাদের ওয়েবসাইট থেকে খুব সহজেই ডাউনলোড করে নিতে পারেন। আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের ভিতরে অনেকেই আছে যারা বাংলাদেশ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইট থেকে নির্ধারিত বিষয়ের প্রশ্ন ডাউনলোড করতে গিয়ে সমস্যার সম্মুখীন হন। এই সমস্যা দূর করার জন্য আমরা আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অ্যাসাইনমেন্টের উত্তর এর পাশাপাশি প্রশ্ন ও প্রকাশ করে থাকি।

 

যেকোনো অ্যাসাইনমেন্ট লেখার পূর্বে অবশ্যই ভালোভাবে উক্ত অ্যাসাইনমেন্ট এর প্রশ্ন পড়ে বুঝে তারপর অ্যাসাইনমেন্টের উত্তর লিখতে হবে। নবম শ্রেণির অষ্টম সপ্তাহ বাংলা অ্যাসাইনমেন্টের পিডিএফ প্রশ্ন ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন

পাঠ্যসূচীর অন্তর্ভুক্ত পাঠ নম্বর ও বিষয়বস্তুঃ

বঙ্গবাণী-আব্দুল হাকিম।

অ্যাসাইনমেন্টঃ

বঙ্গবাণী ও কপোতাক্ষ নদ কবিতাটি মাতৃভাষা আকৃতির মাধ্যমে দেশপ্রেম প্রকাশ পেয়েছে। মন্তব্যটির স্বপক্ষে তোমার যুক্তি উপস্থাপন করো।

নির্দেশনাঃ

শিক্ষার্থীরা পাঠ্যবই থেকে বঙ্গবাণী ও কপোতাক্ষ নদ কবিতা দুটি ভালোভাবে পড়ে এসাইনমেন্ট সম্পন্ন করবে।

 

নবম শ্রেণী ৮ম-সপ্তাহ বাংলা এসাইনমেন্ট উত্তর 2021

প্রিয় নবম শ্রেণীর ছাত্র ছাত্রীরা। তোমরা কোন রকম ঝামেলা ছাড়াই আমাদের ওয়েবসাইট থেকে নবম শ্রেণির অষ্টম সপ্তাহের বাংলা এসাইনমেন্ট এর পরিপূর্ণ এবং সঠিক উত্তর ডাউনলোড করে নিতে পারবে। আমরা অ্যাসাইনমেন্ট এর প্রশ্ন বিশ্লেষণ করে সর্বাধিক সঠিক এবং নির্ভুল উত্তর লেখার চেষ্টা করে থাকি। যার বেশির ভাগ উত্তর নবম শ্রেণীর বোর্ড বই থেকে সংগৃহীত। ফলে আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে প্রকাশিত নবম শ্রেণির বাংলা এসাইনমেন্ট এর উত্তর ছাত্র-ছাত্রীদেরকে সর্বাধিক নম্বর পেতে সহযোগিতা করবে।

আপনারা আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে লিখিত উত্তর ছাড়াও। বাংলা এসাইনমেন্ট সমাধানের পিডিএফ এবং ছবি আকারে ডাউনলোড করে নিতে পারেন। যা পরবর্তীতে অফলাইনে ছাত্র-ছাত্রীরা নিজেদের অ্যাসাইনমেন্ট খাতায় তুলে নিতে পারবে। নবম শ্রেণির অষ্টম সপ্তাহের বাংলা এসাইনমেন্ট এর উত্তর ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন

উত্তরঃ

সূচনাঃ

মধ্যযুগের বাংলা কাব্যসাহিত্যের অন্যতম কবি আব্দুল হাকিম রচিত নূরনামা কাব্যগ্রন্থের অন্তর্গত ‘বঙ্গবাণী’ এবং বাংলা সনেট এর প্রবক্তা মাইকেল মদুসূদন রচিত চতুর্দশপদী কবিতাবলীর অন্তর্গত ‘কপতাক্ষ নদ’ উভয় কবিতাতেই মাতৃভাষার প্রতি অকৃত্রিম ভালবাসার স্বরূপ দেখতে পাই। উপরে উল্লেখিত মন্তব্যটির সাথে আমি একমত পাষণ করছি এবং কেন করছি তার স্বপক্ষে আমার স্বব্যখ্যাত মতামত নিন্মের আলােচনার মাধ্যমে উপস্থাপন করছি।

 দেশপ্রেম কিঃ

দেশপ্রেম হল নৈতিক পাশাপাশি একটি রাজনৈতিক নীতি, যার যার নিজের জন্মভূমির প্রতি ভালবাসার উপর ভিত্তি করে একটি বােধ, পাশাপাশি পিতৃভূমির স্বার্থের জন্য ব্যক্তিগত স্বার্থ ত্যাগ করতে ইচ্ছুক। দেশপ্রেম শব্দটি এসেছে গ্রীক ভাষা থেকে।

বঙ্গবাণী কবিতায় দেশপ্রেমের স্বরূপঃ

বঙ্গবাণী কবিতায় বি আব্দুল হাকিম তাঁর মাতৃভাষা বাংলার প্রতি গভীর অনুরাগ প্রকা করেছেন তার লেখনীর মাধ্যমে। কবি বঙ্গবাণী কবিতা লেখার সময় অনুধাবন করতে পেরেছিলেন যে, বাংলা ভাষায় গ্রন্থ রচিত না হলে সা: । শানুষ তার অধিকার থেকে বঞ্চিত হবে। মানুষের নিজ ধর্ম পালনের মাধ্যমে আল্লাহর কৃপা পাওয়ার সমান অধিকার রয়েছে। আর আল্লাহ তাঁর সৃষ্ট সব পশু পাখি ও মানুষের ভাষাই বুঝতে পারেন। তাই কবি নিজ ভাষায় কাব্য রচনায় এবং ধর্মীয় উপাসনার পক্ষে তার মতামত প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, মারফত সম্পর্কে যারা অজ্ঞ তারাই হিন্দুয়ানি ভাষাজ্ঞানে বাংলা ভাষার প্রতি অনীহা প্রকাশ করে তিনি বাংলার মাটিতে জন্মে যারা বাংলা ভাষার প্রতি বিরপ মনােভাব পােষণ করেন তাদের জন্মপরিচয় নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন এই কবিতার মাধ্যমে। অর্থাৎ কবির এই বক্তব্যের মাধ্যমে স্পষ্টতই বুঝা যায় যে তিনি তার দেশ ও ভাষাকে কতটা ভালবাসতেন। বঙ্গবাণী কবিতায় কবি স্বভাষার বিরােধিতাকারীদের এদেশ ছেড়ে চলে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। বিদেশি ভাষার প্রতি অনুরাগীদের কবি প্রছন্দ করেন না আত্নবিশ্বাসী কবি বিশ্বাস করেন, বাংলা ভাষায় যত উপদেশ বাণী রচিত হবে তা আমাদের মনকে পুনঃপুন জাগিয়ে তুলবে। কবি বলেছেন,

হে বঙ্গ ভান্ডারে তব বিভিধ রতন;

তা সবে (অবােধ আমি!) অবহেলা করি,

পরধন লােভে মত, করিনু ভ্রমণ

 পরদেশে ভিক্ষাবৃত্তি কী কুক্ষণে আচরি।

 এই বক্তব্যের মাধ্যমে দেশের প্রতি অপরিসীম প্রীতি ভালােবাসা প্রকাশ পায়।

কপােতাক্ষ নদকবিতায় দেশপ্রেমের স্বরূপ:

কপাতাক্ষ কবিতায় কবি যশােরের সাগরদাঁড়ির পাশ দিয়ে কুলকুল ধ্বনিতে বয়ে যাওয়া কপাতাক্ষের প্রতি তাঁর গভীর প্রেমবােধের পরিচয় দিয়েছেন। বিদেশে বসে কবি তার জন্মভূমির শৈশব-কৈশােরের বেদনা-বিধুর স্মৃতি রােমন্থন করেছেন, হয়েছেন কাতর। জন্মভূমির এ নদ যেন কবিকে মায়ের স্নেহডােরে বেঁধেছে, তাই কিছুতেই তাকে তিনি ভুলতে পারেন না। স্বদেশের জন্য হৃদয়ের কাতরতা কবি এই কবিতার মাধ্যমে বঙ্গবাসীর কাছে ব্যক্ত করেছেন। কবির এই মাতৃভূমির প্রতি ভালােবাসা ও স্মৃতিকাতরতা কপােতাক্ষ নদ’ কবিতার প্রধান উপজীব্য বিষয়। কবি বলেছেন,

প্রজারূপে রাজরূপ সাগরের দিতে

 বারিরূপ কর তুমি; মিনতি, গাবে

বঙ্গজ জনের কানে, সখে, সখারীতে

নাম তার, প্রবাসে মজি প্রেমভাবে

উপসংহার: আমার পাঠ্যবই এ রচিত ‘বঙ্গবাণী’ ও ‘কপােতাক্ষ নদ’ এই দুইটি কবিতাই মূলত মাতৃভাষা প্রীতির মাধ্যমে দেশপ্রেমেরই বহি:প্রকাশ মাত্র। উপরের আলােচনার মাধ্যমে একথা আরও সুস্পষ্ট হয়।

সকল পোস্টের আপডেট পেতে ‍নিচের ফেসবুক আইকনে ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেইজে জয়েন করুন।

Check Also

বই পড়ার অভ্যাস গঠনে লাইব্রেরির গুরুত্ব বিশ্লেষণ। ৯ম শ্রেণি [৩য় সপ্তাহ] বাংলা

৯ম শ্রেণির বাংলা এসাইনমেন্ট এর নির্ভুল এবং পূর্ণাঙ্গ উত্তর প্রকাশ করা হলো। প্রিয়  ৯ম শ্রেণীর …